Ongkoor.com
Peperomia Hope Plant by Ongkoor indoor plants in Bangladesh

Peperomia Hope প্ল্যান্ট কি? কিভাবে চাষ করবেন? কিভাবে যত্ন নেবেন?

Piperaceae পরিবারের দুটি বড় জেনারের(genera)একটি হল Peperomia । তবে এর বৈজ্ঞানিক নাম Peperomia tetraphylla (পেপেরোমিয়া টেট্রাফাইলা)।অনুমান করা হয় যে বিশ্বের সমস্ত গ্রীষ্মমন্ডলীয় এবং উপক্রান্তীয় অঞ্চলে কমপক্ষে ১০০০ টিরও বেশি প্রজাতি রয়েছে। সাধারনত উত্তর দক্ষিণ আমেরিকা এবং মধ্য আমেরিকায় কেন্দ্রীভূত হলেও আফ্রিকা, দক্ষিণ এশিয়া এবং ওশেনিয়াতেও এই গাছগুলি পাওয়া যায়। এই গাছের সঠিক সংখ্যা বলা কঠিন কারণ কিছু গাছ বিভিন্ন নামে একাধিকবার রেকর্ড করা হয়েছে এবং নতুন প্রজাতির সন্ধান এখনও অব্যাহত রয়েছে। 

Peperomias বিভিন্ন পরিবেশের সাথে খাপ খাইয়ে নেওয়ার কারণে এদের চেহারা ব্যাপকভাবে পরিবর্তিত হয়েছে। কিছু হল এপিফাইট (epiphytes) যা অন্যান্য উদ্ভিদের উপর বেড়ে ওঠে বা লিথোফাইট(lithophytes) যা পাথরে বা শিলার ফাটলে বেড়ে ওঠে এবং অনেকগুলি হল জেরোফাইট (xerophytes ) যা খরা-সহনশীল হয় পুরু রসালো কাঠামো বা ভূগর্ভস্থ কন্দ (জিওফাইট)। বেশিরভাগ প্রজাতিই কম্প্যাক্ট বহুবর্ষজীবী গুল্ম বা লতাগুল্ম।

১৭৯৪ সালে স্প্যানিশ উদ্ভিদবিদ রুইজ লোপেজ(Ruiz López)এবং পাভন জিমেনেজ(Pavón Jiménez) যখন পেরু এবং চিলিতে ভ্রমণ করেন তখন তারা  Peperomias বংশের নামটি তৈরি করেছিলেন। Peperomias উদ্ভিদের ব্যাপকভাবে স্বীকৃত সাধারণ কোন নাম নেই। তবে কেউ কেউ যুক্তি দেন যে জেনাস নামটি ব্যবহার করা ভাল, যেমন পেটুনিয়া(Petunia ) এবং বেগোনিয়ার(Begonia) মতো বংশের ক্ষেত্রে। 

Peperomias গুলিকে কখনও কখনও রেডিয়েটর উদ্ভিদ বলা হয়। নামটি সম্ভবত এল.এইচ. বেইলি(L.H. Bailey) দ্বারা তৈরি করা হয় কারণ তাদের মধ্যে অনেকেই রেডিয়েটরের উপরে একটি জানালার মতো উজ্জ্বল এবং শুষ্ক পরিবেশ উপভোগ করতো।

১০০০ হাজারেরও বেশি Peperomias প্রজাতি রয়েছে, যদিও সঠিক সংখ্যাটি অস্পষ্ট কারণ কিছু উদ্ভিদ বিভিন্ন নামে একাধিকবার রেকর্ড করা হয়েছে (সি. ৩,০০০ নাম প্রকাশনায় ব্যবহৃত হয়েছে) এবং নতুন প্রজাতির সন্ধান অব্যাহত রয়েছে। এই মুহূর্তে ক্যাটালগ অফ লাইফ(Catalogue of Life) প্রায় ১৪০০ স্বীকৃত প্রজাতির তালিকা প্রদান করেছে।

বর্তমানে তাদের মধ্যে প্রায় ৪০ টি প্রজাতি সাধারণত ঘরের উদ্ভিদ হিসাবে ব্যবহৃত হয়।এই মৌলিক গোষ্ঠীর প্রজাতির মধ্যে রয়েছে  P. alata, P. albovittata, P. argyreia, P. blanda, P. boivinii, P. caperata, P. clusiifolia, P. columella, P. dolabriformis, P. ferreyrae, P. fraseri, P. glabella, P. graveolens, P. griseoargentea, P. hoffmannii, P. incana, P. japonica, P. kimnachii, P. maculosa, P. metallica, P. nitida (often sold as P. scandens), P. nivalis, P. obtusifolia, P. pellucida, P. perciliata, P. pereskiifolia, P. polybotrya, P. prostrata, P. quadrangularis (syn. P. angulata), P. rotundifolia, P. rugosa, P. tetragona (syn. P. puteolata), P. tetraphylla, P. turboensis, P. urocarpa, P. verschaffeltii, P. verticillata (syn. P. rubella), and P. wheeleri.

সংক্ষিপ্ত বর্ণনা

চেহারায় যথেষ্ট বৈচিত্রতার কারণে Peperomias কে শ্রেণীবদ্ধ করার কোনো সর্বজনীনভাবে স্বীকৃত পদ্ধতি নেই। যদিও তিনটি প্রধান গোষ্ঠীকে আলাদা করা যায় তবে বেশিরভাগ প্রজাতি কমপ্যাক্ট এবং সাধারণত উচ্চতা 30 সেমি (12 ইঞ্চি) এর বেশি হয় না।

প্রথমে রয়েছে ডেকোরেটিভ ফোলিয়েজ গাছপালা, যা প্রায়ই এপিফাইট(epiphytes) হিসাবে বৃষ্টি বা মেঘের বনে জন্মায়। এরা সাধারনত অন্য ছোট গাছের ছায়াময় ফাটলে জন্মায় উদাহরণস্বরূপ, ছোট গাছ বা ছোট রুট সিস্টেমে এরা বাস করে। ভূগর্ভস্থ পানিতে তাদের প্রবেশাধিকার না থাকায় তারা সাধারণত একটি নির্দিষ্ট মাত্রায় রসালো হয় যার কারণে অনেক প্রজাতির মধ্যে এগুলোকে ঘন, মাংসল দেখায় যার একটি মোমযুক্ত পৃষ্ঠ থাকে এবং কখনও কখনও ঢেউয়ের মত দেখায়। 

পাতাগুলি ডাঁটা সহ ডিম্বাকৃতি হতে পারে অথবা সেগুলি হৃৎপিণ্ডের আকৃতির বা ল্যান্স আকৃতির হতে পারে। তাদের আকার ২.৫ থেকে ১০ সেমি (১-৪ইঞ্চি) পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে। এর পাতা গুলি সবুজ বা ডোরাকাটা, মার্বেল বা ফ্যাকাশে সবুজ, লাল বা ধূসর দিয়ে সীমানাযুক্ত বা পেটিওল(petioles) লাল হয়ে থাকে।

এর কিছু কিছু প্রজাতি যেমন পি.আরগেরিয়া(P.argyreia,),পি.সেপারেটা(P.caperata,),পি.নিটিদা(P. nitida),এবং পি.অবটোসিফোলিয়া ( P. obtusifolia) উচ্চ বায়ু আর্দ্রতা, উষ্ণ তাপমাত্রায় বেঁচে থাকতে পারে এবং সারা বছর বৃদ্ধি পায়।

দ্বিতীয় গ্রুপের গাছ গুলো হলো  শুষ্ক জলবায়ু রসালো Peperomias যা প্রায়ই উচ্চ উচ্চতায় পাওয়া যায়। এরা দীর্ঘ উষ্ণ ঋতু.প্রচন্ড শীত এবং খুব কম বৃষ্টিপাত সহ্য করতে পারে। এই প্রজাতির  Peperomias তাদের মোটা কান্ড এবং তাদের রসালো পাতা উভয়েই পর্যাপ্ত পানি সঞ্চয় করে, যা সাধারণত একধরনের টিউব বা বল গঠন করে যাকে অনেকটা ক্রস-সেকশনে U- বা V- আকৃতির মত দেখায় এবং উপরের দিকে এদের একটি এপিডার্মাল জানালা থাকে।এর উল্লেখযোগ্য প্রজাতি হলো পি.কলোমিলা(P. columella), পি.ফেরিইরা(P. Ferreyrae) এবং পি.নিভালিস(P. nivalis)

তৃতীয় গ্রুপে রয়েছে জিওফাইটিক( geophytic ) Peperomias। এই গাছগুলির পাতা  শীতল শুষ্ক মৌসুমে ঝরে যায় আর বৃষ্টিপাত হলে পাতাগুলি পুনরায় গজায়। তবে এসময় তারা তাদের ভূগর্ভস্থ কন্দের কারণে বেঁচে থাকে। উদাহরণগুলির মধ্যে রয়েছে পি.ম্যাক্রোরাইজা(P. macrorhiza), পি.পেরুভিয়েনা( P. peruviana), এবংপি.উমবিলিকাটা (P. umbilicata)। তবে বর্তমানে মাত্র ৫০টিরও কম প্রজাতির জিওফাইটিক( geophytic) Peperomias এর পরিচিতি পাওয়া যায় আর নতুনগুলি আবিষ্কৃত হচ্ছে।

Peperomias এর ফুল সাধারণত চোখে পড়ে না তবে কর্ডের মতো স্পাইকে বেড়ে ওঠে। যদিও কিছু ব্যতিক্রম আছে যেমন পি. ফ্রেসারি( P. fraseri)। বেশিরভাগ Peperomias ফুল মানুষের কাছে গন্ধহীন তবে কিছু  Peperomias ফুল অপ্রীতিকর গন্ধ বহন করে, যেমন পি. গ্রেভোলেন্স( P. graveolens)। এর ফল দেখতে অনেকটা বেরির মতন যা শেষ পর্যন্ত শুকিয়ে যায় এবং ক্ষুদ্র মরিচের মতো বীজ দেখায়।

প্রতিটি প্রজাতি থেকে বিভিন্ন জাত পাওয়া যেতে পারে। প্রজাতি সনাক্ত করা চ্যালেঞ্জিং কারণ গাছগুলো প্রায়শই বিপণন নাম, পুরানো প্রতিশব্দ, বা এমন নামগুলির অধীনে বিক্রি হয় যা সরকারীভাবে গৃহীত হয়নি। উদাহরণস্বরূপ, পেপেরোমিয়া অরবা( Peperomia orba ) যা প্রায়শই পেপেরোমিয়া ‘পিক্সি’ হিসাবে বিক্রি হয়। পেপেরোমিয়া ভিরিডিস (Peperomia viridis)এবং পেপেরোমিয়া এক্সিলারিসের( Peperomia axillaris) ক্ষেত্রেও এমনটি ঘটে। প্রাকৃতিক প্রজাতি এবং তাদের চাষের পাশাপাশি কিছু কৃত্রিম হাইব্রিড জাতও বাজারে পাওয়া যায়, যেমন পেপেরোমিয়া ‘হোপ'( Peperomia ‘Hope’) যা পি. ডেপিয়ানা( P. deppeana) এবং পি. কোয়াড্রিফোলিয়া (P. quadrifolia) এর মধ্যে একটি ক্রস।

বেশিরভাগ প্রজাতির জন্য বাতাসযুক্ত ভাল-নিকাশী স্তরের প্রয়োজন হয়। গ্রীষ্মমন্ডলীয়, আলংকারিক পাতার গাছগুলি সাধারণত বেশি আর্দ্রতার সাথে ছায়াময় জায়গায় সাচ্ছন্দে থাকতে পারে। কোন কোন গাছের উচ্চ আর্দ্রতা বজায় রাখার জন্য টেরারিয়াম( terrarium ) বা বোতল বাগানের(bottle garden) প্রয়োজন হতে পারে। জিওফাইটিক ( geophytic) Peperomia  বছরে একবার ঠান্ডা মওসুমের সময় বিশ্রামে অভ্যস্ত।

কিভাবে চাষ করবেন

এই গাছগুলি বীজ,কাটিং বা বিভাজন দ্বারা চাষ করা যেতে পারে। গাছগুলিকে সহযেই বিভক্ত এবং repotted করা যেতে পারে। তবে অনেক প্রজাতির Peperomia  শিকড় কাটিং এর সাহায্যে সহজেই চাষ করা যায়। সেক্ষেত্রে কয়েকটি শিকড় সংযুক্ত গাছকে ছোট ছোট টুকরোতে বিভক্ত করুন। 

বীজের মাধ্যমে চারা উৎপাদনের জন্য একটি পাত্রে কিছু ভালো নিষ্কাশিত মাটি মিশিয়ে নিন। এর পর বীজটি বপন করুন এবং চারা না গজানো পর্যন্ত নিয়মিত যত্ন নিন এবং পানি দিন।বসন্ত বা গ্রীষ্মে পাতা বা কান্ডের কাটিংও নেওয়া যেতে পারে। কান্ডের নীচের পাতাগুলি সরিয়ে নীচের নোডের (জয়েন্ট) নীচে একটু কাটুন তারপর একটি প্রতিরক্ষামূলক কলাস(callus) টিস্যু কাটার উপর স্থাপন করে এক বা দুই ঘন্টার জন্য একটি রেখে দিন। তারপর 21-24 °C (70-75 °F) নীচের তাপ সহ একটি প্রোপাগেশন কেজে এগুলি ঢুকিয়ে রাখুন পর্যাপ্ত শিকড় তৈরি না হওয়া পর্যন্ত।পর্যাপ্ত শিকড় তৈরি হয়ে গেলে কাটিংগুলি 75 মিমি (3 ইঞ্চি) পাত্রে বা ঝুলন্ত ঝুড়িতে রোপণ করুন।

কিভাবে যত্ন নেবেন 

গ্রীষ্মমন্ডলীয় এবং উপ-ক্রান্তীয় অঞ্চলে বিশেষত উত্তর দক্ষিণ আমেরিকায় এই গাছগুলি সারা বিশ্বজুড়ে বৃদ্ধি পায়। অর্থাৎেএই গাছগুলি  শীত এবং হিমের প্রতি খুব সংবেদনশীল, তাই আমাদের  ঘরের একটি উজ্জ্বল কোণে গাছগুলোকে রাখতে হবে যেখানে সরাসরি সূর্য ছাড়াই তারা খসড়া (ঠান্ডা এবং উষ্ণ উভয়) থেকে সুরক্ষিত থাকবে। তবে সবচেয়ে ভালো হয় যেখানে তাপমাত্রা 10 ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের উপরে থাকে।

পরিবেষ্টনের আর্দ্রতাটিও উচ্চতর হতে হবে, তাই পাত্রের চারপাশে পাথর বা পানিযুক্ত বাটি দিয়ে একটি প্লেট রাখব। তবে স্প্রে না করাই ভালো কারণ এত করে পাতাগুলি সহজে পচে যেতে পারে।

এই গাছের পাতাগুলি প্রচুর পরিমাণে পানি সঞ্চয় করে, তাই অতিরিক্ত পানি দিলে গাছটি মরে যেতে পারে। সুতরাং মাঝে মাঝে মাটি মুকিয়ে গেলে পানি দিন।গ্রীষ্মে প্রতি ৭-১০ দিনের মধ্যে একবার এবং শীতে প্রতি ১৫দিনে একবার পানি দিন। বসন্ত এবং গ্রীষ্মের সময় গাছটিতে তরল সার দিয়ে এটিকে শক্তি সরবরাহ করুন। প্রতি বসন্তে একবার পাত্র পরিবর্তন কুরন।

উপকারিতা

ভেষজ অর্থে অনেক Peperomia এর পাতাগুলি একটি মশলাদার স্বাদ বহন করে এবং যখন চূর্ণ করা হয় তখন একটি তীব্র গন্ধ নির্গত হয়। এই কারণে কিছু প্রজাতি,যেমন পেপেরোমিয়া পেলুসিডা(Peperomia pellucida) সালাদ এবং রান্নায় বা স্বাদযুক্ত পানীয়তে ব্যবহৃত হয়।

Peperomia inaequalifolia(পেপেরোমিয়া ইনাকোয়ালিফোলিয়া) এবং Peperomia congona (পেপেরোমিয়া কনজুনা) প্রদাহ বিরোধী এবং ক্ষত-নিরাময় গুণাবলীর জন্য প্রসিদ্ধ।এগুলো ওটিটিস এবং কনজেক্টিভাইটিসের বিরুদ্ধে হজমকারী ড্রপ হিসাবেও ভেষজ ওষুধে ব্যবহৃত হয়। যদিও মুধু মাত্র এমন ওষুধের ব্যবহার পেরুতে হত তবে সম্প্রতি এই গাছের সম্ভাব্য ঔষধি গুণাবলীর বিষয়ে গবেষোনা শুরু হয়েছে।

Peperomia এর কিছু উল্লেখযোগ্য ব্যবহার দেওয়া হলোঃ

  • পেট ব্যাথা প্রশমিত করে।
  • ব্রণ এবং ফোড়ার প্রদাহ কমাতে এটি একটি ট্রপিকাল টিংচার।
  • শরীরের রোগ নিরাময় প্রক্রিয়া বুস্ট করে।
  • বিশেষ কিছু ব্যথা উপশম করতে সাহায্য করে।
  • মাথাব্যথা নিরাময় করে।
  • রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিসের( Rheumatoid Arthritis) চিকিৎসা করে
  • কিডনি ফাংশনে সাহায্য করে।
  • অ্যান্টিফাঙ্গাল প্রভাব প্রদান করে।
  • শরীরে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট হিসেবে কাজ করে।

ঘরে কোথায় রাখবেন

Peperomia শীত এবং হিমের প্রতি খুব সংবেদনশীল, তাই আমাদের  ঘরের একটি উজ্জ্বল কোণে গাছগুলোকে রাখতে হবে যেখানে সরাসরি সূর্য ছাড়াই তারা খসড়া (ঠান্ডা এবং উষ্ণ উভয়) থেকে সুরক্ষিত থাকবে। তবে সবচেয়ে ভালো হয় যেখানে তাপমাত্রা 10 ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডের উপরে থাকে।

 

Peperomia Hope Plant প্রশ্নাবলী

========================================

প্রশ্নঃ Peperomia Hope প্ল্যান্ট কী?

উত্তরঃ Peperomia Hope (Peperomia rotundifolia) হল একটি জনপ্রিয় গৃহপালিত উদ্ভিদ যা এর পিছনের কান্ড এবং আকর্ষণীয় গোলাকার পাতার জন্য পরিচিত। এটি দক্ষিণ আমেরিকার পেপারোমিয়ার একটি প্রজাতি।

প্রশ্নঃ আমি কীভাবে Peperomia Hope প্ল্যান্টের যত্ন নেব?

উত্তরঃ Peperomia Hope গাছের যত্ন নেওয়া তুলনামূলকভাবে সহজ। তারা উজ্জ্বল, পরোক্ষ আলো পছন্দ করে তবে কম আলোর অবস্থাও সহ্য করতে পারে। এগুলিকে পরিমিতভাবে পানি দিন, তবে পানি  দেওয়ার আগে  উপরের মাটি শুকিয়েছে কিনা তা নিশ্চিত করুন। এরা ভালোভাবে নিষ্কাশনকারী মাটিতে জন্মায়।

প্রশ্নঃ আমি কি বাইরে একটি Peperomia Hope প্ল্যান্ট জন্মাতে পারি?

উত্তরঃ পেপেরোমিয়া হোপ গাছগুলি প্রাথমিকভাবে ইনডোর গাছ হিসাবে জন্মায়, তবে তারা হালকা আবহাওয়ায় বাইরে জন্মাতে পারে। তারা 65°F এবং 80°F (18°C – 26°C) এর মধ্যে তাপমাত্রা পছন্দ করে এবং গাছ গুলোকে তুষারপাত থেকে রক্ষা করা উচিত।

প্রশ্নঃ Peperomia Hope প্ল্যান্ট কত লম্বা হয়? 

উত্তরঃ Peperomia Hope গাছের পেছনে কান্ড থাকে যা 12 ইঞ্চি (30 সেন্টিমিটার) পর্যন্ত দৈর্ঘ্যে পৌঁছাতে পারে। তবে  এগুলি সাধারণত কমপ্যাক্ট হাউসপ্ল্যান্ট হিসাবে রাখা হয়।

প্রশ্নঃ আমি কিভাবে Peperomia Hope প্ল্যান্ট চাষ করতে পারি? 

উত্তরঃ Peperomia Hope গাছগুলি সহজেই চাষ করা যেতে পারে। আপনি কয়েকটি পাতা কেটে নিন।  শিকড় বিকাশ না হওয়া পর্যন্ত আর্দ্র মাটি বা পানিতে রেখে কান্ডের কাটিংগুলির মাধ্যমে তাদের বংশবিস্তার করতে পারেন।

প্রশ্নঃ  কত ঘন ঘন আমার Peperomia Hope প্ল্যান্টে সার দেওয়া উচিত?

উত্তরঃ Peperomia Hope গাছগুলি ভারী খাদ্যদাতা নয় এবং ঘন ঘন নিষেক ছাড়াই উন্নতি করতে পারে। ক্রমবর্ধমান মৌসুমে (বসন্ত এবং গ্রীষ্ম), আপনি একটি সুষম হাউসপ্ল্যান্ট সার ব্যবহার করে প্রতি দুই থেকে তিন মাসে একবার তাদের সার দিতে পারেন। 

প্রশ্নঃ Peperomia Hope গাছগুলি কি পোষা প্রাণীদের জন্য বিষাক্ত?

উত্তরঃ  Peperomia Hope গাছগুলিকে পোষা প্রাণীদের জন্য অ-বিষাক্ত বলে মনে করা হয় তাই বিড়াল, কুকুর বা অন্যান্য প্রাণীর জন্য একটি নিরাপদ পছন্দ হতে পারে।

প্রশ্নঃ  আমি কি ঝুলন্ত ঝুড়িতে Peperomia Hope প্ল্যান্ট রাখতে পারি?

উত্তরঃ হ্যাঁ, Peperomia Hope প্ল্যান্টগুলি তাদের পিছনের বৃদ্ধির অভ্যাসের কারণে ঝুড়িতে ঝুলানোর জন্য উপযুক্ত।

প্রশ্নঃ  Peperomia Hope গাছের কি উচ্চ আর্দ্রতা প্রয়োজন?

উত্তরঃ Peperomia Hope গাছপালা ঘরের গড় আর্দ্রতা সহ্য করতে পারে। সামান্য উচ্চ আর্দ্রতা হলেও সমস্যা নেই। আর্দ্রতা বাড়াতে গাছের চারপাশে পানি ভরা একটি ট্রে রাখতে পারেন এবং মাঝে মাঝে পাতাগুলিকে মিস্টিং করতে পারেন।

প্রশ্নঃ  আমি কি আমার Peperomia Hope প্ল্যান্ট ছাঁটাই করতে পারি?

উত্তরঃ  হ্যাঁ, আপনি আপনার Peperomia Hope প্ল্যান্টের আকৃতি বজায় রাখতে এবং বুশিয়ার বৃদ্ধিকে উৎসাহিত করতে ছাঁটাই করতে পারেন। পরিষ্কার, ধারালো কাঁচি বা ছাঁটাই কাঁচি ব্যবহার করে ডালপালা বা পাতা ছিঁড়ে ছাঁটাই করা যেতে পারে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shopping Cart
0
Your Cart is empty!

It looks like you haven't added any items to your cart yet.

Browse Products
Powered by Caddy